প্রবাস টাইম
বাংলাদেশসোমবার , ৯ মে ২০২২
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমেরিকা
  5. ইউরোপ
  6. এশিয়া
  7. ওমান
  8. করোনা আপডেট
  9. কৃষি
  10. খেলাধুলা
  11. খোলা কলম
  12. চাকরি
  13. জাতীয়
  14. জানা অজানা
  15. জীবনের গল্প
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন সালমান এফ রহমান

মিসবাহ রবিন
মে ৯, ২০২২ ৬:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

‘পাসপোর্ট কই, ফরম পূরণ করেছিস? ‘এত কাটাছেঁড়া কেন, এটা হবে না। আবার লিখে নিয়ে আয়।’ প্রবাসীদের সাথে তুই-তোকারি আচরণ যেন ঢাকা বিমানবন্দরের একটি নির্দিষ্ট ভাষা। ‘লাগেজে সোনা আছে, ব্যাগে কী কী এনেছিস, কত দিন ধরে বিদেশে থাকিস, খেজুর এনেছিস কি-না, বিদেশি টাকা কত আছে, ঈদের বখশিশ কত দিবি’_ এমন সব প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় প্রবাসীদের।

বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন সালমান এফ রহমান

হয়রানির এ দৃশ্য যেন শাহজালাল বিমানবন্দরের নিত্যদিনের ঘটনা। দেশের অর্থনীতির চাকা যাদের পাঠানো অর্থে সচল থাকে, সেই প্রবাসীদেরই বিদেশ যাতায়াতে বিমানবন্দরে হয়রানি করা হচ্ছে। শুধু বিদেশ ফেরত যাত্রীই নন, বিদেশ গমনের ক্ষেত্রেও যাত্রীরা নাস্তানাবুদ হচ্ছেন বিভিন্ন টেবিলে। দাঁড়িয়ে থাকতে হয় দীর্ঘ সময়।

LULU

বিমানবন্দরের এমন চিত্র গণমাধ্যমে তুলে ধরার কারণে বর্তমানে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে এবার কঠোর হুশিয়ারি দিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। সোমবার (৯ মে) বিকেল ৪টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পরিদর্শনে এসে তিনি বলেন, আমি বিমানবন্দরের কার্যক্রমে সন্তুষ্ট নই। অনেক অভিযোগ আসছে। অপ্রয়োজনীয় হয়রানির ঘটনা ঘটছে। প্রধানমন্ত্রী এসবের সমাধান ও সমন্বয়ের কথা বলেছেন। আজকের পরিদর্শনের পর যদি দেখি অভিযোগের হার কমছে না, তাহলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন সালমান এফ রহমান

আকস্মিক বিমানবন্দর পরিদর্শনের কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় বিমানবন্দরে নানা হয়রানি ও অপ্রয়োজনীয় ভোগান্তির খবর প্রকাশ হচ্ছে। সে জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পরিদর্শনে এসেছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, পরিদর্শন করে দেখে আসো কী কী সমস্যা বিমানবন্দরে। এখানে প্রধানমন্ত্রীর সচিবও রয়েছেন।

 

শাহজালাল বিমানবন্দর পরিদর্শনে কোন ধরনের সমন্বয়হীনতার ও অভিযোগের সত্যতা পেলেন, জানতে চাইলে সালমান এফ রহমান বলেন, দুই তিন জায়গায় হয়রানির কথা শুনেছিলাম। কোভিডের সার্টিফিকেট এনেও এখানে দীর্ঘ লাইন হতো। এখানে এখন কিউআর কোড নিয়ে এসে লাইনে দাঁড়াতে হচ্ছে না। যারা কিউআরকোড আনেন না তারা ভোগান্তিতে পড়ছেন।

PK Remittance

অনেকে অভিযোগ করেছেন, যাওয়া ও আসায় ইমিগ্রেশনের সময় টাকা দিতে হয়। টাকা না দিলে পাসপোর্ট সিল করে না। অনেক সময় ইমিগ্রেশনই হয় না বা আননেসেসারি হয়রানি করা হয়। আমরা আজ এসবির চিফকেও নিয়ে আসছি। তিনিও শুনেছেন। এ ধরনের অভিযোগের সত্যতা পেলে ইমিগ্রেশনের সেসব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন সালমান এফ রহমান

তিনি বলেন, এসব সমস্যা সমাধানে শিগগিরই অ্যাপ উদ্বোধন করা হচ্ছে। ইমিগ্রেশনের সময় ইমিগ্রেশন অফিসার হয়রানি করলে, টাকা চাইলে অভিযোগ করা যাবে অ্যাপসে। অ্যাপস চালু হলে অপ্রয়োজনীয় প্রশ্ন করার প্রবণতাও কমে যাবে। 

 

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা বলেন, এখানে সরকারি যেসব প্রতিষ্ঠান আছে তাদের কর্মকর্তাদের আমি আজ বলেছি, ঢাকায় যারা আসে তারা প্রথম বিমানবন্দরেই নামে। এটাই প্রথম এন্ট্রি। এর বাইরে কী হয় সেটা তো পরে। কিন্তু বিমানবন্দরেই যদি অভিজ্ঞতা খারাপ হয় তাহলে কিন্তু বাংলাদেশ সম্পর্কে নেতিবাচক বা ইতিবাচক ভাবমূর্তি বা ধারণা তৈরি হয়। এখানে যদি নেতিবাচক ধারণা হয় তাহলে দেশের ইমেজ নষ্ট হয়। এটা বন্ধ করতে হবে। আমাদের দেশে বিদেশি আসছে তার সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ার চেষ্টা আমাদের করতে হবে।

কাস্টমস সম্পর্কে তিনি বলেন, অনেক যাত্রী সোনা আমদানি করেন। কিন্তু সেটা আনলে ট্যাক্স দিতে হবে। এটাই নিয়ম। কিন্তু ডিক্লারেশনে তারা এমাউন্ট দেয় এরপর টাকা দিতে ব্যাংকে যায়। কাস্টমস থেকে ব্যাংক বেশ দূরে। সে জন্য আমরা সময়ক্ষেপণ বন্ধ করতে কাস্টমস ও ব্যাংক পাশাপাশি আনার কথা বলেছি। কাস্টমস আশ্বস্ত করেছে।

বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন সালমান এফ রহমান

আর কাস্টমসে আসা ব্যাগেজ প্রি স্ক্যানিং করা যায় কি না সেটা আমরা পরীক্ষা করতে বলেছি। কারণ প্রিস্ক্যানিং করা গেলে কাস্টমসের বাইরের চাপ কমবে। শুধু সেই ব্যাগেজ চেক করা হবে যেটা আগেই স্ক্যান করে মার্ক করা হয়েছে। যেটা বিদেশে হয়। ওনারা বলছেন, থার্ড টার্মিনালে এসব ব্যবস্থা থাকবে।

 

ই-গেট এখানে বাস্তবায়ন হয়নি। ওভার অল অনেকগুলো হয়রানি, ভোগান্তির অভিযোগ শুনছি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী আজকের পরিদর্শন। সরকার এ ব্যাপারে কঠোর। আশা করছি এসবের সমাধান হবে।

বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন সালমান এফ রহমান

জমজমের পানি আনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিমানে আনা যাবে না, অনলাইনে অর্ডার করলে বাসায় মিলবে জমজমের পানি। সৌদি সরকার পরিষ্কার করে দিয়েছে, ব্যক্তিগত লাগেজে জমজমের পানি আনা যাবে না। জমজমের পানি বেচাকেনার কোম্পানি আছে। সেই কোম্পানি থেকে জমজমের পানি কিনতে অনলাইন সেবা আছে। অনলাইনে অর্ডার করলে বাসায় পৌঁছে যাবে জমজমের পানি। এটা ওমরা হজের যাত্রীরা অনেকে জানেন না। লাগেজে জমজমের পানি আনছেন। তখন সৌদি এয়ারলাইন্স লাগেজ দুদিন পর পাঠাচ্ছে। এতে ভোগান্তিতে পড়ছেন তারা। 

বিমানবন্দরে হয়রানি বন্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিলেন সালমান এফ রহমান

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ট্রলি আর কোভিড একসঙ্গে জড়িত। আগে ট্রলিতে লাগেজ রেখে কোভিড টেস্ট করতে যেতেন যাত্রীরা। এখন তো কোডিভ সার্টিফিকেট লাগছে না। তাই ট্রলির ওপর চাপ নেই। আর সব কিছুতে আউট সোর্সিং করা যায় না। যেমন কাস্টমস ইমিগ্রেশন কিন্তু সোর্সিং করা সম্ভব নয়। আমরা সেটা এড্রেস করছি।

 

আরো পড়ুন:

পবিত্র কোরআন শরীফ কীভাবে ছাপা হয়?

সবাই আমার স্ত্রীকে চোরের বউ বলে আমাকে জামিন দেন

পাসপোর্ট অফিসে কোটি টাকার ঘুষ বাণিজ্য, অনুসন্ধানে দুদক 

প্রবাসী বন্ডে কমছে মুনাফার হার

ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত জসিম

করোনা মোকাবিলায় ওমানের চেয়েও এগিয়ে বাংলাদেশ

 

আরো দেখুনঃ

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।