প্রবাস টাইম
ঢাকাবুধবার , ১১ মে ২০২২
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমেরিকা
  5. ইউরোপ
  6. এশিয়া
  7. ওমান
  8. করোনা আপডেট
  9. কৃষি
  10. খেলাধুলা
  11. খোলা কলম
  12. চাকরি
  13. জাতীয়
  14. জানা অজানা
  15. জীবনের গল্প
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সৌদিতে আরো এক বাংলাদেশি তরুণের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

প্রতিবেদক
মিসবাহ রবিন
মে ১১, ২০২২ ৬:৩৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

কয়েকদিনের ব্যবধানে সৌদি আরবে হাসিবুল হাসান মুন্সী নামে আরো এক বাংলাদেশী তরুণের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মক্কায় রাস্তার পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। হাসিবুলের দেশের বাড়ি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার শশীদল ইউনিয়নের নাগাইশ গ্রামে।

সৌদিতে আরো এক বাংলাদেশি তরুণের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

গত ৯ মে হাসিবুলের মা নাসিমা বেগম জানান, গেল ৫ মে সকালে ছেলের সঙ্গে তিনি মোবাইল ফোনে কথা বলেন। পরদিন শুক্রবার ভোরে হাসিবুল তার স্ত্রীর সাঙ্গে কথা বলেছেন। এরপর থেকে তার সঙ্গে আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তিন দিন পর তার খালা শ্বশুর হাসপাতালের মর্গে গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করেন। ছেলে হাসিবুল উক্ত হাসপাতালেই কাজ করতেন বলে জানান মা নাসিমা বেগম।

Unimoni

হাসিবুলের পরিবার বলছে, এটি স্বাভাবিক মৃত্যু নয়। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। পরে মরদেহ রাস্তার পাশে ফেলে রেখে গাড়িচাপায় মৃত্যু হয়েছে বলে প্রচার করছে ওই হাসপাতালের মালিকপক্ষ।

 

জানা গেছে, প্রায় ১৫ বছর আগে এক আত্মীয়র মাধ্যমে চাকরির জন্য হাসিবুল সৌদি যান। তিন মাস আগে তিনি ছুটিতে দেশে এসেছিলেন। উপার্জনের তাগিদে কিছুদিন আগে আবারো তিনি কর্মস্থলে ফিরে যান। সেসময় দেশে স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তান রেখে যান হাসিবুল।

উল্লেখ্যঃ গত পহেলা মে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের নিকটতম আল হারমোলিয়াহ এলাকা থেকে আবদুর রহমান নামে এক বাংলাদেশী যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করে সৌদি আরবের পুলিশ। তার দেশের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার উত্তর চর লরেঞ্চ গ্রামে।

 

আরো পড়ুন:

পবিত্র কোরআন শরীফ কীভাবে ছাপা হয়?

সবাই আমার স্ত্রীকে চোরের বউ বলে আমাকে জামিন দেন

পাসপোর্ট অফিসে কোটি টাকার ঘুষ বাণিজ্য, অনুসন্ধানে দুদক 

প্রবাসী বন্ডে কমছে মুনাফার হার

ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত জসিম

করোনা মোকাবিলায় ওমানের চেয়েও এগিয়ে বাংলাদেশ

 

আরো দেখুনঃ

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।