প্রবাস টাইম
বাংলাদেশরবিবার , ১৫ মে ২০২২
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমেরিকা
  5. ইউরোপ
  6. এশিয়া
  7. ওমান
  8. করোনা আপডেট
  9. কৃষি
  10. খেলাধুলা
  11. খোলা কলম
  12. চাকরি
  13. জাতীয়
  14. জানা অজানা
  15. জীবনের গল্প
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার সময় ৩২ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

মিসবাহ রবিন
মে ১৫, ২০২২ ৪:৪৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টার সময় ৩২ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে তিউনিসিয়া। শনিবার এই বাংলাদেশিরাসহ মোট ৮১ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির নৌবাহিনী। তিউনিসিয়ার নৌবাহিনীর কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে আরব নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত নৌকাটি তিউনিসিয়ার উত্তর-পূর্ব উপকূল থেকে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে ভাসছিল।

Unimoni

অভিবাসীরা বলেছেন, লিবিয়া সীমান্তের কাছে তিউনিসিয়ার উপকূলীয় আবু খাম্মাশ গ্রাম থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছিলেন তারা। নৌকাটিতে মিসরের ৩৮, বাংলাদেশের ৩২, সুদানের ১০ এবং মরক্কোর একজন নাগরিক ছিলেন। তাদের সবার বয়স ২০ থেকে ৩৮ বছরের মধ্যে।

উদ্ধারকৃত অভিবাসীদের মধ্যে একজন নারীও আছেন। এই অভিবাসীদের উদ্ধারের পর তিউনিসিয়ার ন্যাশনাল গার্ডের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যেতে চাওয়া অভিবাসীদের মূল প্রস্থান পয়েন্ট তিউনিসিয়া এবং প্রতিবেশী লিবিয়া। প্রায়ই অত্যন্ত দুর্বল এবং হালকা নৌযানে চেপে এই অভিবাসীরা বিপজ্জনক যাত্রা শুরু করে।

Probashir Taxi

তিউনিসিয়ার উপকূল থেকে মাত্র ১৩০ কিলোমিটার দূরে ইতালির ল্যাম্পেদুসা দ্বীপের অবস্থান। একটি নিরাপত্তা সূত্র বলছে, গত মাসে লিবিয়ান কর্তৃপক্ষ ৫৪২ জন অভিবাসীকে গ্রেপ্তার করেছে। এই অভিবাসীরা জাহাজে করে ইউরোপে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির একজন আলোকচিত্রী বলেছেন, গ্রেপ্তারকৃত অভিবাসীদের বেশিরভাগই বাংলাদেশি নাগরিক।

 

আরো পড়ুন:

সবাই আমার স্ত্রীকে চোরের বউ বলে আমাকে জামিন দেন

পাসপোর্ট অফিসে কোটি টাকার ঘুষ বাণিজ্য, অনুসন্ধানে দুদক 

প্রবাসী বন্ডে কমছে মুনাফার হার

ওমানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত জসিম

করোনা মোকাবিলায় ওমানের চেয়েও এগিয়ে বাংলাদেশ

 

আরো দেখুনঃ

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।