প্রবাস টাইম
বাংলাদেশবৃহস্পতিবার , ২৩ জুন ২০২২
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমেরিকা
  5. ইউরোপ
  6. এশিয়া
  7. ওমান
  8. করোনা আপডেট
  9. কৃষি
  10. খেলাধুলা
  11. খোলা কলম
  12. চাকরি
  13. জাতীয়
  14. জানা অজানা
  15. জীবনের গল্প
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঢাকা বিমানবন্দরে নারীর বিশেষ অঙ্গ থেকে ৮ সোনার বার উদ্ধার

শহিদুল ইসলাম
জুন ২৩, ২০২২ ৬:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৮টি সোনার বারসহ নুরুননাহার নামে এক নারীকে আটক করেছে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের কর্মকর্তারা। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৫ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের বিজি-১৪৮ ফ্লাইটের ঐ যাত্রীকে আটক করা হয়।

সংশিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালকের কাছে গোপন সংবাদ আসে দুবাই থেকে আগত দুবাই-চট্টগ্রাম-ঢাকা রুটের বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট নং বিজি-১৪৮ এ চট্টগ্রাম থেকে ওঠা একজন যাত্রী চোরাচালানকৃত সোনা বহন করছেন।

এই খবরের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত সার্কেরের সহকারী পরিচালক আব্দুল মান্নান মজুমদারের নেতৃত্বে কাস্টমস গোয়েন্দার একটি দল লোকাল টার্মিনালের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান করে। বোর্ডিং ব্রিজ অতিক্রমকালে সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়।

পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি পায়ুপথে বিশেষ কায়দায় সোনা বহন করছেন বলে গোয়েন্দা দলকে জানান। এরপর সোনার উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার শরীর এক্স-রে করানো হয়।

এতে চারটি সোনার মতো বস্তুর অস্বিত্ব পাওয়া যায়। পরে তার কাছে থাকা চারটি প্যাকেটে মোট ৮টি সোনার বার পাওয়া যায়। ৯৩২ গ্রাম ওজনের ঐ সোনার বারগুলোর বাজার মূল্য আনুমানিক ৬৫ লাখ ২৪ হাজার টাকা।

অভিযুক্ত যাত্রী নুরুননাহারের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইন, ১৯৭৪ এবং ‘দ্য কাস্টমস অ্যাক্ট ১৯৬৯’-এর বিধান অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিমানবন্দর সূত্র।

আরো পড়ুন:

তিন কোটি টাকার স্বর্ণসহ বিমানের কেবিন ক্রু আটক

ওমানে বাড়ছে মুদ্রাস্ফীতি, সবচেয়ে বেশি দাম বেড়েছে খাদ্যপণ্যে 

ঢাকা বিমানবন্দরে ছুঁড়ে ফেলা হয় লাগেজ

রাষ্ট্রদূত আবু জাফরের মায়ের মৃত্যুতে আমিরাত প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ 

মাসে লক্ষাধিক বাংলাদেশি কর্মীকে ভিসা দিচ্ছে সৌদি আরব 

আরো দেখুনঃ

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।