মালয়েশিয়ায় প্রবাসী কর্মীদের চিকিৎসায় হাসপাতালগুলোর অনীহা

ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ আগস্ট ২২, ২০২২ | ৪:১৮
ডেস্ক নিউজ
আপডেটঃ আগস্ট ২২, ২০২২ | ৪:১৮
Link Copied!
মালয়েশিয়ায় প্রবাসী কর্মীদের চিকিৎসায় হাসপাতালগুলোর অনীহা

বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতীম দেশ মালয়েশিয়া। দেশটির অবকাঠামো উন্নয়নে বাংলাদেশি কর্মীদের রয়েছে অনেক অবদান। তবে প্রায়ই প্রবাসী কর্মীদের চিকিৎসা দিতে হাসপাতালগুলোর অনীহা দেখা যায়। লাখ লাখ বাংলাদেশি বসবাস করলেও বাংলাদেশের সঙ্গে মালয়েশিয়ার চিকিৎসা সম্পর্কিত কোনো চুক্তি নেই।

এমতাবস্থায় রেমিট্যান্সযোদ্ধাদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশের সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। তারা বলছেন, চিকিৎসা ঘাটতি ও জটিলতা বছরের পর বছর রয়েছে। প্রবাসীদের স্বাস্থ্যসেবা ও কল্যাণ নিশ্চিতে সরকারকেই পথ খুঁজে বের করতে হবে।

জানা গেছে, মালয়েশিয়ার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া অনেক বাংলাদেশির টাকা বকেয়া রয়েছে। তারা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সময় কৌশলে অন্যের পাসপোর্ট নম্বর দিয়ে ভর্তি হন এবং একটু সুস্থ হলে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান। যারা এজেন্ট থাকে বা আশ্রয় দেয় তারাও চিকিৎসা বিল পরিশোধ করে না। এজন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশিদের সেবা দিতে অনীহা প্রকাশ করে।

বিজ্ঞাপন

আরও জানা যায়, বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের বকেয়া চিকিৎসা বিল নিয়ে এইচকেএল (হাসপাতাল কুয়ালালামপুর) প্রায়ই যৌথ সভা করে। সেখানে বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মকর্তা উপস্থিত থাকেন। প্রতিবারই বিল পরিশোধের জন্য তাগিদ দেওয়া হয়। কিন্তু হাইকমিশন চিকিৎসা নেওয়া ব্যক্তিদের কাছে থেকে যেমন বকেয়া বিল আদায় করে দেয় না এবং সরকারি উদ্যোগেও বিল পরিশোধের ব্যবস্থা করা হয় না। এছাড়া চিকিৎসাধীন অবস্থায় কেউ মারা গেলে হাসপাতালের বিল বকেয়া থাকলে মরদেহ হস্তান্তর করা হয় না। বিল পরিশোধ করার জন্য দূতাবাসে চিঠি পাঠায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে, দূতাবাস জোরালোভাবে মালয়েশিয়া সরকারকে জানিয়েছে, হাসপাতালের নিয়ম অনুযায়ী রোগীর তথ্য নিয়ে চিকিৎসা দেয়। সেখানে কর্মীর নাম, পাসপোর্ট নম্বর, ঠিকানা, কর্মস্থল, নিয়োগকর্তার নাম লেখা থাকে। সেই তথ্যের ভিত্তিতে কর্মী ও নিয়োগকর্তার খুঁজে পাওয়া সম্ভব, সে অনুযায়ী তথ্য দিলে দূতাবাস বিল আদায়ে সহযোগিতা করতে পারবে।

ইন্টার ন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়ার অধ্যক্ষ মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসী কল্যাণ নীতি, আইন ও বিধি অনুযায়ী দূতাবাসের শ্রম কর্মকর্তাদের নিয়মিত হাসপাতাল ভিজিট করে চিকিৎসাধীন বাংলাদেশি কর্মীদের খোঁজ খবর নেওয়া এবং মন্ত্রণালয়ে রিপোর্ট করার বিধান রয়েছে। সেটি জোরদার করা হলে চিকিৎসা প্রাপ্তির অনেক সমস্যার সমাধান হবে।

বিজ্ঞাপন

আরো পড়ুন:

কাতারের শ্রম বাজার খোলার পূর্বাভাষ!

প্রবাসীরা আমাদের মাথার মুকুট: পরিকল্পনামন্ত্রী

সৌদি আরবে কর্মরত অবস্থায় মারা গেলেন দুই প্রবাসী

রেমিট্যান্সের প্রণোদনা ৪ শতাংশ করার দাবী আমিরাত প্রেসক্লাবের

বিনা খরচে প্রবাসীদের মরদেহ দেশে পাঠাতে কুয়েত প্রবাসীদের আহ্বান

আরো দেখুনঃ

শীর্ষ সংবাদ:
ওমানে সাইবার প্রতারণার নতুন ফাঁদ, প্রবাসীদের সর্তক থাকার আহ্বান প্রবাসীদের অজ্ঞান করে সর্বস্ব লুট, চক্রের মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ৪ ছুটিতে এসে সৌদি প্রবাসীর মৃত্যু দুর্নীতির অভিযোগে বিমানের চিফ ইঞ্জিনিয়ারকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ প্রবাসীদের পাশে দাঁড়াল বাংলাদেশ পুলিশ আকাশে উড়ল বিশ্বের প্রথম বিদ্যুৎচালিত যাত্রীবাহী বিমান তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা ওমানে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ‘ব্রুসেলোসিস’, দেশজুড়ে আতঙ্ক দক্ষতা যাচাইয়ে সৌদি-বাংলাদেশ চুক্তি সই বিকল্প পদ্ধতিতে ১০ হাজার কর্মী যাচ্ছে মালয়েশিয়া মৃত সাগরে মানুষ ডুবে না কেন? কালের সাক্ষী সুলতান সুলেমান আমলের মসজিদ ডাক্তারদের লেখার কারণে প্রতি বছর ৭ হাজার মানুষের মৃত্যু প্রবাসীদের নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ গুরুত্বের অঙ্গীকার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের ওমানে নতুন রোগের সন্ধান, সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান সৌদির ফুটপাতে ঘুমাচ্ছেন বাংলাদেশিরা যুবরাজ সালমানকে সৌদি আরবের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা চালু হচ্ছে ওমান আমিরাত দ্রুত গতির ট্রেন দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ওমান গেলেন আমিরাতের প্রেসিডেন্ট চোখ ওঠা যাত্রীদের সাতদিনের মধ্যে বিদেশ ভ্রমণ না করার অনুরোধ