আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে চোখ উঠা

নতুন রোগ, বিমানবন্দর থেকে ফেরত যাচ্ছেন অনেক প্রবাসী

ডেস্ক রিপোর্ট
আপডেটঃ সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২ | ৭:৩৯
ডেস্ক রিপোর্ট
আপডেটঃ সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২ | ৭:৩৯
Link Copied!

বাংলাদেশে আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে চোখ উঠা। কনজাংটিভাইটিস বা চোখের আবরণ কনজাংটিভার প্রদাহ। গত দু’সপ্তাহ ধরে সোনাইমুড়ী উপজেলার প্রায় প্রতিটি পরিবারে হঠাৎ করে বাড়ছে চোখ ওঠা রোগীর সংখ্যা। বিভিন্ন হাসপাতালের তথ্য বলছে, সোনাইমুড়ীতে এখনো পর্যন্ত প্রায় পঞ্চান্ন শতাংশ মানুষ এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

হঠাৎ এ রোগে আতঙ্কিত গ্রামের বাসিন্দারা। চিকিৎসকরা বলছেন, গরমে আর বর্ষায় চোখ ওঠার প্রকোপ বাড়ে। উপজেলার প্রতিটি হাসপাতালে বাড়ছে চক্ষু রোগীদের ভিড়। শিশু থেকে বৃদ্ধ প্রায় সব বয়সের লোকদেরই দেখা যাচ্ছে এ রোগের। এছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও হাট বাজারে অধিকাংশ মানুষের কনজাংটিভার প্রদাহ বা চোখ উঠা রোগীর দেখা মিলছে। রোগটি ছোঁয়াচে হওয়ার ফলে দ্রুত অন্যদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে।

এ নিয়ে প্রবাসীদের মাঝেও বেশ শঙ্কা দেখা দিয়েছে। বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে অনেক প্রবাসী দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। বিমানবন্দর সূত্রে জানাগেছে, সম্প্রতি অনেকেই চোখ ওঠা রোগের লক্ষণ নিয়ে বিমানবন্দরে আসলে এয়ারলাইন্স কর্মকর্তা যাত্রীকে পাঠিয়ে দিচ্ছেন বিমানবন্দর স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কাছে। রোগের বয়স অন্তত সাতদিন না হলে উক্ত যাত্রীকে “fit to fly” সনদ দেওয়া হচ্ছেনা। এক্ষেত্রে যাত্রীকে চোখ ওঠা রোগে আক্রান্ত হয়েছেন এটা প্রমাণ করার জন্য তাকে চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন দেখাতে হবে। সেক্ষেত্রে চিকিৎসক যদি মনে করেন যাত্রীর চোখ ওঠা রোগের কোন লক্ষণ নেই, কেবলমাত্র তখনই যাত্রীকে এই সনদ দেওয়া হবে। এই সনদ ব্যতীত যাত্রীকে বোর্ডিং পাস দিবে না এয়ারলাইন্স।

বিজ্ঞাপন

চোখ ওঠা অত্যন্ত সংক্রামক একটি রোগ। আক্রান্ত ব্যক্তিকে বারবার চোখ মুছতে হয়। চোখ মোছার জন্য ব্যবহৃত আঙ্গুল বা টিস্যু বা কাপড় যা কিছুর সংস্পর্শে আসবে সেখানেই রোগের ভাইরাস ছড়িয়ে যাবে৷ উড়োজাহাজের ভিতরে খুব অল্প জায়গায় অনেক মানুষকে দীর্ঘ সময় বসে থাকতে হয়। প্রতি ২৫ থেকে ৫০ জন যাত্রীকে একটি টয়লেট শেয়ার করতে হয়। অন্য যাত্রীদের সংস্পর্শে না এসে সিটে বসা বা সিট থেকে ওঠা যায় না। এ পরিবেশে চোখ ওঠার ভাইরাস খুব সহজেই অন্য যাত্রীদের মধ্যে ছড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

তাই চোখ ওঠা রোগে আক্রান্তদের সুস্থ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলা হয়েছে। এই রোগ থেকে বাঁচতে ময়লা হাতে চোখ স্পর্শ না করা, একজনের চোখ মুখ মোছার জন্য গামছা বা টাওয়েল অন্যজন ব্যবহার না করা এবং নিজের ঘুমানোর বালিশ অন্যের সাথে ভাগাভাগি না করতে পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বিজ্ঞাপন

আরো দেখুনঃ

শীর্ষ সংবাদ:
বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় জাতীয় দিবস উদযাপন করলো সৌদি আরব ঢাকায় আমিরাতের নতুন রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লাহ আলহামুদি শিশু পর্নোগ্রাফির অভিযোগে বাংলাদেশি গ্রেফতার অবশেষে ফাঁস হলো মেসির বার্সা ছাড়ার রহস্য বিশ্বকাপে টিকিটের সাথে ‘হায়া কার্ড’ বাধ্যতামূলক করলো কাতার ওমানে চুরির অভিযোগে চার প্রবাসী গ্রেফতার সিরিয়া উপকূলে নৌকাডুবিতে নিহত ৭১ অভিবাসী মধ্যপ্রাচ্যের বাজারে সাড়া ব্যাপক ফেলছে বাংলাদেশি মাছ কুয়েতে প্রবাসীদের জন্য দুঃসংবাদ দুবাইতে মেশিনের সুইচ চাপলেই বিনামূল্যে মিলছে রুটি কোরআন প্রতিযোগিতায় ১১১ দেশের মধ্যে তৃতীয় বাংলাদেশের তাকরীম প্রবাসীদের পাসপোর্ট প্রাপ্তি সহজীকরণের দাবি জামালপুরে এক মেয়ে বিয়ে করলো আরেক মেয়েকে সিআইডি অভিযানের পর রেমিট্যান্সের প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়েছে বিমানবন্দর থেকে সাফ জয়ী নারীদের লাগেজ ভেঙে আড়াই লাখ টাকা চুরি রহস্যময় গ্রাম, মানুষকে উধাও করে দেয় নিমিষেই নতুন রোগ, বিমানবন্দর থেকে ফেরত যাচ্ছেন অনেক প্রবাসী ওমানে গাড়ী বীমার খরচ বাড়লো ১৫ শতাংশ হানিমুনে গিয়ে প্রবাসী স্বামীকে পিটিয়ে প্রেমিকের সাথে পালালো স্ত্রী ইউরোপে মানবপাচার চক্রের মূলহোতাসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার