কুরআনের সুরে বিশ্বকাপের উদ্বোধন, নতুন ইতিহাস

নভেম্বর ২১, ২০২২ | ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ
ডেস্ক রিপোর্ট , প্রবাস টাইম

জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন হয় এবারের কাতার বিশ্বকাপের। যেখানে সংক্ষিপ্ত সময়ের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে নানা বিষয়। কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে পুরো বিশ্ব অবাক হয় যখন এবারের আয়োজনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শুরু হয় কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে। মুসলিম বিশ্বের আহবানে পুরো বিশ্ববাসির জন্য এ এক অনন্য ইতিহাস সৃষ্টি করলো কাতার। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৪০ মিনিটে কাউন্ট ডাউনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় কাতার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো ও কাতার ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধানের আগমনের পরই শুরু হয় আনুষ্ঠানিকতা। শুরুতেই কাতারের নিজেদের ইতিহাস সংক্ষেপে তুলে ধরা হয়। এরপর স্থানীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। পরবর্তীতে পুরো স্টেডিয়ামে কোরআন তেলাওয়াত ও এর অর্থ পড়ে শোনান উপস্থাপক। এরপরই একে একে গান ও বাদ্যের তালে স্থানীয় সংস্কৃতি তুলে ধরেন আয়োজকরা। সেই ১৯৩০ সাল থেকে প্রতি চার বছর পর পর মাঠে গড়ায় বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। এ বছরের আগে পেরিয়ে গেছে ২১টি আসর। কিন্তু এবারের আসরটি একেবারেই ভিন্ন বদলে গেছে ইতিহাস। খরচ কিংবা আধুনিকায়ন সব দিক থেকেই ২০২২ বিশ্বকাপ আলাদা। এসবের ভিড়ে নতুন করে আলোচনায় এসেছে পবিত্র কুরআনের কথা। কেননা এবারের বিশ্বকাপে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পবিত্র কুরআন তেলওয়াত করা হয়েছে। যা ৯২ বছরের ইতিহাসে কখনো করা হয়নি। এরকম দৃশ্য এর আগে কখনোই দেখেনি বিশ্ব। কেননা এবারের বিশ্বকাপে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পবিত্র কুরআন তেলওয়াত করা হয়েছে। যা ৯২ বছরের ইতিহাসে কখনো করা হয়নি। এরকম দৃশ্য এর আগে কখনোই দেখেনি বিশ্ব। করতালির মাঝে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যের মাধ্যমে কাতার বিশ্বকাপের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন কাতার ফুটবল ফেডারেশনের প্রধান। সেই সঙ্গে শুরু হয় আতশবাজি। এ সময় পুনরায় স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের বর্তমান ও পূর্ববর্তী সব মাসকট প্রবেশ করে। যার মাধ্যমে শেষ হয় বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।


আরো পড়ুন:

ওমানের জাতীয় দিবসের বাকি ২ দিন, উদযাপনে

ওমানে বিশ্বকাপের ছোঁয়া, মাস্কাটে পৌঁছেছে জার্মান

কাতার বিশ্বকাপে সেবা দিবে ৮ হাজার বাংলাদেশি

প্রবাসী কর্মীকে চাকরীচ্যুত করায় পৌনে দুই লাখ

ওমানের আল খয়েরে পুলিশের কঠোর অভিযান

আরো দেখুনঃ https://www.youtube.com/watch?v=6aNo1_Q2CwA